ছাতকে কৃষক-কৃষানীদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২৩, ৫:০৭ অপরাহ্ণ


ছাতক প্রতিনিধিঃ ছাতকে বসতবাড়ির আঙ্গিনায় পারিবারিক পুষ্টি বাগান স্থাপনের লক্ষ্যে কৃষক-কৃষানীদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০মার্চ) উপজেলা কৃষি অফিস প্রাঙ্গণ থেকে এসব বিতরণ করেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক হোসেন খান। উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে চলতি মৌসুমে বর্ষাকালীন পারিবারিক সবজী ও পুষ্টি বাগান স্থাপনের লক্ষ্যে উপজেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষদেরকে বিনামুল্যে বিভিন্ন ধরনের কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হয়।

উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, ছাতকের শতাধিক ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক-কৃষাণীদের মাঝে ৪৫ জাতের সবজী বীজ ও সব ধরনের সারসহ বিভিন্ন কৃষি উপকরণ প্রদান করা হয়েছে। এসময় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক হোসেন খান বলেন বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে ১ ইঞ্চি জমিও যেন পতিত না থাকে সেজন্য বার বার নির্দেশনা দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। তাঁর নির্দেশনা অনুযায়ী কৃষি মন্ত্রণালয় সময়োপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। ফলে নানান দুর্যোগের মধ্যেও আমরা খাদ্য উৎপাদনের ধারা শুধু অব্যাহত রাখা নয়, তা আরও বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছি। ফলে মানুষের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে।

এদিকে গত মঙ্গলবার(২৮মার্চ)ছাতকে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে আউশ প্রণোদনার সার ও বীজ বিতরণ করা হয়েছে। এদিন সকালে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে আউশ প্রণোদনার সার ও বীজ বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ছাতক উপজেলার চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরের জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক হোসেন খানের পরিচালনায় কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ছাতক উপজেলা পরিষদের উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান লিপি বেগম। বক্তব্য রাখেন ভাতগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন মাষ্টার, চরমহল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত। উল্লেখ্য, ২০২২-২৩ অর্থ বছরের খরিপ ১/২০২৩-২৪ মৌসুমে উফশী আউশ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় আওতায় ছাতক উপজেলার ২৭০০ জন কৃষকদের মাঝে জনপ্রতি ৫ কেজি বীজ, ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার বিনামূল্যে প্রদান করা হবে।